1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : Ashraful Abedin : Ashraful Abedin
  3. [email protected] : masud :
রবিবার, ০৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০২:৫৫ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
পাবনা ক্যাডেট কলেজের পঞ্চম ব্যাচের রি-ইউনিয়ন ঈশ্বরদীর গ্রীণসীটি সিফুড স্টেশনের কফি আড্ডায় অংশ গ্রহণকারীদের মন্তব্য যৌতুকের দাবিতে অমানবিক নির্যাতনের অভিযোগ,প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা ইসলামী লাইফ টাইম ফাউন্ডেশনের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন ট্রেনে অভিযান পরিচালনা করায় রেলওয়ে পাকশী বিভাগের কর্মকর্তারা প্রশংসিত ঈশ্বরদীতে বিশাল গাড়ি মেলার উদ্বোধন করলেন নিটল নিলয় গ্রুপের চেয়ারম্যান আব্দুল মাতলুব আহমাদ আন্তর্জাতিক ক্বিরাত সম্মেলন ঈশ্বরদীতে পৌর কাউন্সিলর কামাল হোসেনের মুক্তির দাবিতে সভা অনুষ্ঠিত ঈশ্বরদীর বাঘইল স্কুল এন্ড কলেজে পুণঃমিলনী সভা অনুষ্ঠিত বাঘইল স্কুল এন্ড কলেজের ৭৫ তম বছর পূর্তি অনুষ্ঠান বাস্তবায়ন কমিটির সভা অনুষ্ঠিত ঈশ্বরদীতে নিষিদ্ধ ট্রাপেন্ডাডল ট্যাবলেটসহ এক নেতা গ্রেফতার

রোহিঙ্গা সহ ৫৫ হাজার অবৈধ ভোটার-ইসি পরিচালক সহ ৪ জন আসামী

  • প্রকাশিত : বুধবার, ১৬ জুন, ২০২১
  • ৪২৫ বার দেখা হয়েছে

অনলাইন ডেক্স ॥ রোহিঙ্গাসহ ৫৫ হাজার ৩১০ জনকে অবৈধভাবে ভোটার করা হয়েছে। সেই অপরাধে নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের পরিচালক খোরশেদ আলমসহ ৪ জনের বিরুদ্ধে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) মামলা দায়ের করেছেন।

দুদকের চট্টগ্রাম সমন্বিত জেলা কার্যালয়ে সংস্থাটির উপ-সহকারী পরিচালক মো. শরীফ উদ্দিন বাদী হয়ে  বুধবার (১৬ জুন) মামলাটি দায়ের করেন। দুদকের জনসংযোগ দফতর ও দুদক চট্টগ্রামের একজন কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করার শর্তে বিষয়টি গন মাধ্যাম কে নিশ্চিত করেছেন।

মামলাটির আসামিরা হলেন-চট্টগ্রামের সাবেক সিনিয়র জেলা নির্বাচন অফিসার ও বর্তমানে নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের পরিচালক খোরশেদ আলম, চট্টগ্রাম সিনিয়র জেলা নির্বাচন অফিসারের সাবেক উচ্চমান সহকারী ও বর্তমানে রামু উপজেলা নির্বাহী অফিসার মাহফুজুল ইসলাম, চট্টগ্রাম সিনিয়র জেলা নির্বাচন অফিসারের সাবেক অফিস সহায়ক রাসেল বড়ুয়া ও পাঁচলাইশ থানা নির্বাচন অফিসের সাবেক টেকনিক্যাল এক্সপার্ট মো. মোস্তফা ফারুক।

এজাহার সূত্রে জানা যায়, উক্ত আসামিরা পরস্পর যোগসাজশে চট্টগ্রাম জেলার ভোটার তালিকা প্রণয়নে অফিসের ল্যাপটপসহ কয়েকটি ল্যাপটপ ব্যবহার করে রোহিঙ্গাসহ ৫৫ হাজার ৩১০ জনকে অবৈধভাবে ভোটার তালিকায় নাম তালিকাভূক্ত করেছেন।

মামলায় বলা হয়, নির্বাচন অফিসের সাবেক টেকনিক্যাল এক্সপার্ট মোস্তফা ফারুক অফিসের ল্যাপটপ সহ সংশ্লিষ্ট কিছু মালামাল গ্রহণ করে অন্যান্য আসামিদের সহযোগিতায় এমন অপকর্ম করেছেন। বিগত ২০১৫ সাল হইতে ২০১৯ সালের মধ্যে ওই ভোটার তালিকা প্রস্তুত করা হয় বলে জানা যায়।

এ সময় অফিসের সরকারী ল্যাপটপ হারিয়ে যাওয়ার নাটক করে আসামিরা দায়িত্ব এড়িয়ে যাওয়ারও চেষ্টা করেছেন। মামলায় আসামিদের বিরুদ্ধে দণ্ডবিধির ২০১/০৯/১০৯ ধারাসহ ১৯৪৭ সালের দুর্নীতি প্রতিরোধ আইনের ৫(২) ধারায় অভিযোগ আনা হয়েছে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ

সাম্প্রতিক সংবাদ

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সম্পূর্ণ বেআইনি এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায় সিসা হোস্ট