1. admin@sadhinotarkontho.com : admin :
  2. akter.panna.1@gmail.com : akter.panna.1 :
  3. mdashrafishurdi@gmail.com : Ashraful Abedin : Ashraful Abedin
  4. masud@sadhinotarkontho.com : masud :
বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ০৭:৪৬ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
হবিগঞ্জ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের কর্মবিরতি পালন স্পীকারের সাথে বাংলাদেশে নিযুক্ত কোরিয়ার রাষ্ট্রদূতের সৌজন্য সাক্ষাৎ ঈশ্বরদীর দাশুড়িয়া প্রি-ক্যাডেট স্কুলে মুক্তিযুদ্ধ কর্ণারের উদ্বোধন ঈশ্বরদীতে উপজেলা চেয়ারম্যান পদের দুই প্রার্থীর নির্বাচন জমে উঠেছে সন্ত্রাস মুক্ত স্মার্ট ও ডিজিটাল ঈশ্বরদী গড়ার লক্ষ্যে উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থীর পথসভা অনুষ্ঠিত সাপ্তাহিক ঈশ্বরদী’র ২২ বর্ষপূতি: উৎসব শোভাযাত্রা সূধী সমাবেশ সঙ্গীত সন্ধ্যা ঈশ্বরদী পৌর এলাকায় আনারস প্রতিকের প্রার্থীর পক্ষে নির্বাচনী জনসভা অনুষ্ঠিত আচরণবিধি লঙ্ঘনের দায়ে পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া উপজেলার চেয়ারম্যান প্রার্থী রিয়াজের প্রার্থিতা বাতিল ব্রিটিশ প্রকৌশলী রবার্ট উইলিয়াম গেলসের সুরম্য দ্বিতল বিশিষ্ট বাংলো এবং ব্রিটিশ প্রকৌশলীর স্মৃতিস্থান এখনও দর্শনার্থীদের আকৃষ্ট করে ঈশ্বরদীতে ২৯৫ বোতল ফেনসিডিল ও নগদ টাকাসহ রেল নিরাপত্তা বাহিনীর সিপাহী আটক

রাশিয়ার দৃষ্টিনন্দন লালা টিউলিপ মসজিদ

  • প্রকাশিত : সোমবার, ১৮ জানুয়ারী, ২০২১
  • ৯০০ বার দেখা হয়েছে

স্বাধীনতার কন্ঠ।। রাশিয়ার বাশকোরতোস্তান রাজ্যের রাজধানী ওয়াফায় অবস্হিত দৃষ্টিনন্দন  লালা টিউলিপ মসজিদ। ‘লালা টিউলিপ’ অর্থ ফুটন্ত টিউলিপ। ৫৩ মিটার লম্বা মসজিদটির দুটি মিনার অবিকল ফুটন্ত টিউলিপের মতো দেখতে।  মিনার দুটি উচ্চতায় রাশিয়ার তৃতীয় বৃহত্তম। দূরে থেকে দেখতে মিনার দুটি রক্তলাল টিউলিপের মতো।

বাশকোরতোস্তানে মুসলমানরা তাতার তূর্কী মুসলমান।স্থানীয়ভাবে প্রচলিত আছে যে আধফোঁটা টিউলিপের অন্তরে প্রকৃত সুখ নিহিত থাকে। বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে-ছিটিয়ে থাকা প্রায় ১৫০ জাতের টিউলিপ তুর্কিদের নিকট খুব প্রিয়। বর্তমান তুরস্কের বেশির ভাগ দর্শনীয় স্থানেই রকমারি টিউলিপের বাহার দেখতে পাওয়া যায়।

ফুটন্ত টিউলিপের আদলে নির্মিত লালা টিউলিপ মসজিদটির নির্মাণকাজ শুরু হয় ১৯৯০ সালে এবং তা ১৯৯৮ সালে সমাপ্ত হয়। নির্মান খরচ বহন করে স্থানীয় মুসলিম সম্প্রদায় ও রাজ্য সরকার। আধুনিক স্থাপত্যশৈলী অনুসরণে প্রকৌশলী ওয়াকিল ড্যাভল্যাশিনের তত্ত্বাবধানে এটি নির্মিত হয়। এখানে নারী-পুরুষ মিলে একসঙ্গে প্রায় এক হাজার মুসল্লি একসাথে নামাজ আদায় করতে পারেন। মসজিদটি নির্মাণের পর থেকে এটি রাজ্যের প্রধান ইসলামী কেন্দ্র  হিসেবে ব্যবহার করা হচ্ছে।

রাশিয়ার মুসলিম অধ্যুষিত প্রজাতন্ত্রগুলোর মধ্যে বাশকোরতোস্তান অন্যতম। এক লাখ ৪৩ হাজার বর্গকিলোমিটার আয়তনের এই প্রজাতন্ত্রের জনসংখ্যা প্রায় ৫০ লাখ। এদের মধ্যে প্রায় ৩৮.৬ শতাংশ মুসলিম। ২০০০ সালের আগে এই প্রজাতন্ত্রে মাত্র ১৬টি মসজিদ ছিলো। বর্তমানে সেই সংখ্যা বেড়ে প্রায় দেড় হাজারের কাছাকাছি।

২০১৮ সালের জানুয়ারি মাসে ওয়াফায় অনুষ্ঠিত এক সভায় রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন তাঁর দেশ রাশিয়ায় মসজিদের সংখ্যা বৃদ্ধিতে সন্তোষ প্রকাশ করেন।

সূত্র : রাউজ ম্যাগাজিন ও আল জাজিরা।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ

সাম্প্রতিক সংবাদ

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সম্পূর্ণ বেআইনি এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায় সিসা হোস্ট