1. admin@sadhinotarkontho.com : admin :
  2. akter.panna.1@gmail.com : akter.panna.1 :
  3. mdashrafishurdi@gmail.com : Ashraful Abedin : Ashraful Abedin
  4. masud@sadhinotarkontho.com : masud :
শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪, ০৪:৪২ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
ঈশ্ববদীসহ বিভিন্ন জেলাবাসীদের সেবা বৃদ্ধি এবং দেশের উন্নয়নে ভ্যাট-ট্যাক্স আয়ের লক্ষে উত্তরাঞ্চলের সর্ববৃহৎ ও আন্তর্জাতিক মানের শপিং কমপ্লেক্স আরআরপি সেন্টারে লটারী ড্র-অনুষ্ঠিত ঈদে প্রকাশিত হলো যুদ্ধবিরোধী গান প্যালেস্টাইন : যুদ্ধ যুদ্ধ খেলা ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবসে বঙ্গবন্ধুর প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন প্রধানমন্ত্রীর টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ প্রস্তুতির সিরিজ শুরু করছে পাকিস্তান-নিউজিল্যান্ড ইরানের বিরুদ্ধে নতুন নিষেধাজ্ঞা আরোপ করবে যুক্তরাষ্ট্র : হোয়াইট হাউস বিয়ের আগে কয়জনের সঙ্গে প্রেম ছিল বিদ্যা’র! বান্দরবানে যৌথবাহিনীর অভিযান: কেএনএফএর ৪সহযোগী গ্রেফতার ঈশ্বরদীতে নানা আয়োজনে পহেলা বৈশাখ পালিত ঈশ্বরদীতে বিশিষ্টজনদের সংবর্ধনা প্রদান ও ঈদ আনন্দ মেলার উদ্বোধন তরমুজের রাজধানীতে চলছে জমজমাট কেনাবেচা

নৌ ফাঁড়ি পুলিশের প্রচেষ্টায় রক্ষা পেলো ১৫ শিশু সহ ৪৫ জন

  • প্রকাশিত : সোমবার, ২৩ আগস্ট, ২০২১
  • ৭৫৭ বার দেখা হয়েছে

ভরা পদ্মানদীতে বিকল হওয়া ট্রলার থেকে প্রাণে রক্ষা পাওয়া শিশুসহ ৪৫ ব্যক্তি।

স্টাফ রিপোর্টার ॥ ঈশ্বরদীর লক্ষিকুন্ডা নৌ ফাঁড়ি পুলিশের তাৎক্ষনিক পদক্ষেপের কারণে ভরা পদ্মা নদীর পানিতে ডুবে প্রাণ হানির হাত থেকে রক্ষা পেয়েছে শিশু সহ ৪৫ জন।

শনিবার মধ্যরাতে পাকশী পদ্মা নদীর পন্টুন ঘাট এলাকায় এই প্রাণ রক্ষার স্মরণীয় ঘটনাটি ঘটেছে। বিষয়টি জানার পর নৌ ফাঁড়ি পুলিশের কর্মদক্ষতা ও সাহসিকতা নিয়ে ঈশ্বরদী এলাকার মানুষের মুখে মুখে প্রশংসা ভাসছে। রবিবার রাত সাড়ে নয়টায় নৌফাঁড়ি পুলিশের পক্ষ থেকে সাংবাদিকদের দেওয়া তথ্যসূত্রে এসব জানাগেছে।

সূত্রমতে, শনিবার রাত এগারোটায় ঈশ্বরদীর প্রত্যন্ত চরাঞ্চল লক্ষিকুন্ডা ইউনিয়নের আলহাজ্ব মোড় এলাকার ১৫ শিশুসহ ৪৫ ব্যক্তি ভরা পদ্মা নদীর প্রবল স্রোতকে উপেক্ষা করে একটি ট্রলারযোগে বাঘার ঐতিহাসিক মসজিদ দেখার উদ্দেশ্যে রওনা দেয়। ট্রলারটি পাকশী হার্ডিঞ্জব্রীজ ও লালনশাহ সেতু অতিক্রম করে সাঁড়াঘাট এলাকায় প্রবেশ করার পরপরই ট্রলারের ইঞ্জিন বিকল হয়ে পড়ে। এসময় প্রবল স্রোতের তোরে ট্রলারটি বাঘা অভিমুখে না গিয়ে দ্রুতবেগে পেছনের দিকে আসতে থাকলে শিশুসহ ৪৫ ব্যক্তিই আতংকিত হয়ে দিকবিদিক ছুটাছুটি করতে থাকে। এ অবস্থায় প্রাণ হারানোর আতংকের মধ্যেও এক ব্যক্তি ট্রিপল নাইনে(৯৯৯) ফোন করে বিষয়টি জানালে তাৎক্ষণিকভাবে লক্ষিকুন্ডা নৌ ফাঁড়িতে ফোন করে সংবাদ দেওয়া হয়। সংবাদ পেয়ে নৌ ফাঁড়ি পুলিশের কর্মকর্তারা সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে পাকশী পদ্মা নদীর পন্টুন এলাকায় অভিযান চালিয়ে ১৫ শিশুসহ ৪৫ ব্যক্তিতে অক্ষত অবস্থায় উদ্ধার করে রাত তিনটায় নৌ ফাঁড়িতে এনে প্রয়োজনীয় চিকিৎসাসেবা দেওয়া হয়। রবিবার সারাদিনে উদ্ধার করা ৪৫ জনকে অভিভাবকদের জিম্মায় দেওয়া হয়েছে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ

সাম্প্রতিক সংবাদ

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সম্পূর্ণ বেআইনি এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায় সিসা হোস্ট