1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : Ashraful Abedin : Ashraful Abedin
  3. [email protected] : masud :
মঙ্গলবার, ০৪ অক্টোবর ২০২২, ০৫:৩০ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
সোমবার সারাদেশে সব জুয়েলারি প্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠার স্বপ্ন নিয়ে কাজ করছেন-ডেপুটি স্পীকার ঈশ্বরদী নিরাপত্তাবাহিনীর সদস্যের মানবেতর জীবনযাপন, দেখার কেউ নেই ঈশ্বরদী উপজেলা আওয়ামীলীগ নেতা তৈয়ব আলী আর নেই রেলের উন্নয়নে মহাপরিকল্পনা হাতে নিয়ে কাজ করছে সরকার-রেল সচিব ঈশ্বরদীতে গৃহবধু মালা হত্যার বিচার ও আসামিদের ফাঁসির দাবিতে সংবাদ সম্মেলন ও মানববন্ধন অনুষ্ঠিত ঈশ্বরদী কিন্ডার গার্টেন এসোসিয়েশনের প্রীতি সম্মিলনে নতুন কমিটি গঠন আকরাম আলী খান সঞ্জু ফুটবল টুর্ণামেন্টে জাগ্রত সংঘ ৩-১ গোলে চ্যাম্পিয়ন জেলা পরিষদ নির্বাচনকে সামনে রেখে ঈশ্বরদী উপজেলা আওয়ামী লীগের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত টিসিবির জন্য কেনা হবে ১৬৫ লাখ লিটার সয়াবিন

জামিন পেলেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান মীর নাসির

  • প্রকাশিত : রবিবার, ৩ জানুয়ারী, ২০২১
  • ৩১৮ বার দেখা হয়েছে

স্টাফ রিপোর্টার।।রোববার(৩ রা জানুয়ারী) প্রধান বিচারপতির নেতৃত্বে গঠিত ভার্চুয়াল আপিল বেঞ্চ দুদকের মামলায় বি এনপির ভাইস চেয়ারম্যান মীর মোহাম্মদ নাসিরউদ্দিন কে জামিনের আদেশ দেন।

 
 
দুর্নিতী দমন কমিশনের মামলার পক্ষে শুনানী করেন এ্যাডভোকেট খুরশীদ আলম এবং আসামী পক্ষে শুনানী করেন সাবেক এ্যাটর্নি জেনারেল মোহাম্মদ আলি ও ব্যারিষ্টার রুহুল কুদ্দুস।

দুদকের মামলায় উচ্চ আদালতের আদেশে গত ৮ নভেম্বর মীর নাছির বিচারিক আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিন চান। তখন জামিন না মঞ্জুর করে তাকে জেল হাজতে পাঠানো হয়।
অবৈধ সম্পদ অর্জন ও সম্পদের তথ্য গোপনের অভিযোগে গত ৬ই মার্চ ২০০৭ সালে মীর নাসির এবং তার ছেলে মীর হেলালের নামে রাজধানীর গুলশান থানায় দুদক মামলা করে। এই মামলায় মীর নাসিরকে ১৩ বছর ও তার ছেলে মীর হেলালকে তিন বছর কারাদণ্ড দেন আদালত। ঐ রায়ের বিরুদ্ধে মীর নাসির ও মীর হেলাল হাইকোর্টে আপিল করেন। ২০১০ সালের আগস্টে হাইকোর্ট মীর নাসির ও মীর হেলালের সাজা বাতিলের রায় দেন।
পরে হাইকোর্টের রায় বাতিল চেয়ে আপিল করে দুদক। শুনানি শুনে ২০১৪ সালে ৩ রা জুলাই আপিল বিভাগ হাইকোর্টের রায় বাতিল ঘোষনা করেন।
একই সঙ্গে বিচারিক আদালতের সাজার বিরুদ্ধে তাদের করা পৃথক আপিল হাইকোর্টে পুনঃ শুনানির নির্দেশ দেন। শুনানি শেষে ২০১৯ সালের ১৯ নভেম্বর হাইকোর্ট রায়ে আপিল খারিজ করা হয়।
যার ফলে তথ্য গোপনের অভিযোগে মীর নাছিরের তিন বছরের এবং অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে ১০ বছরের সাজা বহাল থাকে। একই সঙ্গে তার ছেলে মীর হেলালের তিন বছরের সাজা বহাল থাকে। এবং তিন মাসের মধ্যে আত্মসমর্পণের নির্দেশ দেয়া হয়।
ছেলে মীর হেলাল উদ্দিন গত ২৭ অক্টোবর বিচারিক আদালতে আত্মসমর্পণ করেন। সেদিন ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-২ কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। পরে তিনি আপিল বিভাগে আবেদন করেন। ১ নভেম্বর আপিল বিভাগের চেম্বার আদালত জামিন দেন তাকে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরো সংবাদ

সাম্প্রতিক সংবাদ

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সম্পূর্ণ বেআইনি এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায় সিসা হোস্ট