1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : Ashraful Abedin : Ashraful Abedin
  3. [email protected] : masud :
সোমবার, ০৩ অক্টোবর ২০২২, ০১:২৩ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
সোমবার সারাদেশে সব জুয়েলারি প্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠার স্বপ্ন নিয়ে কাজ করছেন-ডেপুটি স্পীকার ঈশ্বরদী নিরাপত্তাবাহিনীর সদস্যের মানবেতর জীবনযাপন, দেখার কেউ নেই ঈশ্বরদী উপজেলা আওয়ামীলীগ নেতা তৈয়ব আলী আর নেই রেলের উন্নয়নে মহাপরিকল্পনা হাতে নিয়ে কাজ করছে সরকার-রেল সচিব ঈশ্বরদীতে গৃহবধু মালা হত্যার বিচার ও আসামিদের ফাঁসির দাবিতে সংবাদ সম্মেলন ও মানববন্ধন অনুষ্ঠিত ঈশ্বরদী কিন্ডার গার্টেন এসোসিয়েশনের প্রীতি সম্মিলনে নতুন কমিটি গঠন আকরাম আলী খান সঞ্জু ফুটবল টুর্ণামেন্টে জাগ্রত সংঘ ৩-১ গোলে চ্যাম্পিয়ন জেলা পরিষদ নির্বাচনকে সামনে রেখে ঈশ্বরদী উপজেলা আওয়ামী লীগের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত টিসিবির জন্য কেনা হবে ১৬৫ লাখ লিটার সয়াবিন

ঈশ্বরদীতে স্বামীর উপর অভিমান করে এসএসসি পরীক্ষার্থীর আত্মহত্যা

  • প্রকাশিত : মঙ্গলবার, ২০ সেপ্টেম্বর, ২০২২
  • ৬৩ বার দেখা হয়েছে

স্টাফ রিপোর্টার ঈশ্বরদ।। একাধিকবার মোবাইলে কল করেও স্বামী কল রিসিভ না করায় অভিমান করে আত্মহত্যার করেছে এসএসসি পরীক্ষার্থী সিফা খাতুন (১৬)। সে সলিমপুর ইউনিয়নের ভাড়ইমারী গ্রামের কৃষক হিছাব আলীর মেয়ে । সোমবার রাতে এই মর্মান্তিক আত্মহত্যার ঘটনাটি ঘটেছে। ঈশ্বরদী উপজেলার সলিমপুর ইউনিয়নে বাবার বাড়ি ভাড়ইমারী গ্রামের নিজ ঘরে সে আত্মহত্যা করে। মঙ্গলবার সকালে তার লাশ ময়নাতদন্তের জন্য পাবনা মর্গে পাঠিয়েছে ঈশ্বরদী থানা পুলিশ।
আত্মহত্যার বিষয়ে সলিমপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল মজিদ বাবলু মালিথা জানান,
করোনাকালীন সময়ে পার্শ্ববর্তী ইউনিয়ন দাশুড়িয়ায়
সিফা খাতুনের বাল্যবিয়ে হয়। নিহত ওই শিক্ষার্থীর
স্বামী চট্টগ্রামে কাজ করেন।বাবার বাড়ি থেকে মেয়েটি চলতি বছরে অনুষ্ঠিত এসএসসি পরীক্ষায়  অংশগ্রহণ করছিল। সোমবার ইংরেজি পরীক্ষা দিয়ে আসার পর থেকে সে তার স্বামীকে বারবার ফোন করছিল। কিন্তু তার
স্বামী ফোন রিসিভ না করায় তার অভিমান হয়। এ কারণে
সে আত্মহত্যা করে থাকতে পারে বলে ধারনা করা হচ্ছে।
সোমবার সকালে ইংরেজি প্রথমপত্র পরীক্ষায় অংশগ্রহণ
করে সিফা। মঙ্গলবার সকালে ইংরেজি দ্বিতীয় পত্র পরীক্ষায় অংশ নেওয়ার কথা ছিল। সন্ধ্যায়ও সে বাড়িতে স্বাভাবিক ছিল। রাত আনুমানিক সোয়া ৮টার দিকে পরিবারের লোকজন সিফাকে ডাকাডাকি করেন। এ সময় কোনো সাড়াশব্দ না পেয়ে ঘরের ভেতর ঢুকেই দেখতে পান গলায় ওড়না পেঁচানো অবস্থায় আড়ার সঙ্গে ঝুলে আছে তার মরদেহ। পরে থানায় খবর দিলে গভীর রাতে পুলিশ এসে ঘটনাস্থল থেকে মরদেহ উদ্ধার করে। ঈশ্বরদী থানার ওসি অরবিন্দ সরকার জানান, মৃত্যুর খবর শুনে
ঘটনাস্থলে গিয়ে ঝুলন্ত অবস্থায় সিফার মরদেহ উদ্ধার করে
সুরতহাল শেষে মরদেহটি থানায় আনা হয়। মঙ্গলবার সকালে ময়নাতদন্তের জন্য পাবনা হাসপাতাল মর্গে
পাঠানো হয়েছে। পুলিশ প্রাথমিকভাবে ধারণা করছে
এটি আত্মহত্যা। তবে ময়নাতদন্ত রিপোর্ট হাতে পেলে
আসল কারণ জানা যাবে। এবিষয়ে ঈশ্বরদী থানায় একটি
ইউডি মামলা রেকর্ড করা হয়েছে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরো সংবাদ

সাম্প্রতিক সংবাদ

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সম্পূর্ণ বেআইনি এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায় সিসা হোস্ট