1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : Ashraful Abedin : Ashraful Abedin
  3. [email protected] : masud :
বৃহস্পতিবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২২, ০৫:৪৪ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
ঈশ্বরদীতে পৃথক পৃথক সড়ক দূর্ঘটনায় তিন ব্যক্তি আহত পাকশী বিভাগসহ পশ্চিমাঞ্চল রেলের নিরাপত্তাবাহিনীর প্রথমবারের মত দায়িত্ব পালনে শ্রেষ্ঠত্ব অর্জনকারীদের স্বীকৃতি প্রদান রেল পশ্চিমাঞ্চলের আরএনবির শ্রেষ্ঠ ইন্সপেক্টর নির্বাচিত হয়েছেন ফিরোজ আহমেদ আওয়ামী লীগ সরকার বাংলাদেশের যোগাযোগ ব্যবস্থার ব্যাপক উন্নতি করেছে-প্রধানমন্ত্রী ঈশ্বরদীতে বাম্পার ফলনে ধান কাটার ধুম ও কৃষকের মনে স্বস্তি ঈশ্বরদী স্টেশন ইয়ার্ডে পরীক্ষামূলকভাবে কম্পিউটার বেজড ইন্টার লকিং (সিবিআই) সিষ্টেমের উদ্বোধন ও ট্রেন চলাচল শুরু ঈশ্বরদীতে বিএনপির সমাবেশ অনুষ্ঠিত ঈশ্বরদীর সন্তান পুলিশের টিআই রাকিবুর রহমানের ইন্তেকাল বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের ফাইন্যান্স কমিটির সভা অনুষ্ঠিত অনারম্বর অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে ঈশ্বরদীতে রেল সপ্তাহের উদ্বোধন

ঈশ্বরদীতে বাম্পার ফলনে ধান কাটার ধুম ও কৃষকের মনে স্বস্তি

  • প্রকাশিত : বৃহস্পতিবার, ২৪ নভেম্বর, ২০২২
  • ৪৩ বার দেখা হয়েছে

তৌহিদ আক্তার পান্না,ঈশ্বরদী ।। চলতি আমন মৌসুমে বাম্পার ফলনের পর ঈশ্বরদীতে ধান কাটা- ও মাড়াইয়ের ধুম পড়েছে। এসব আমন ধান কেটে জায়গা খালি করা হচ্ছে তিল, মটর, মসুর, খেসারি, কালাই, সরিষাসহ বিভিন্ন ফসল চাষের জন্য । বাম্পার ফলন ও ম‚ল্য বেশী থাকায়
চাষীরা এবার খুশিতে দিন পার করছেন। ধান কাটা মজুররাও তাদের প্রাপ্য মজুর পেয়ে খুশিতে এসব ধানকাটা ও মাড়াই কাজে সঠিকভাবে অংশ নিতে পারায় তাদের পরিবারেও স্বস্তিকর অবস্থা বিরাজ করছে। ঈশ্বরদী এলাকার বিভিন্ন কৃষক,ধান কাটা শ্রমিক ও কৃষি অফিস সূত্রে এসব তথ্য জানাগেছে। সূত্রমতে, চলতি মৌসুমে ঈশ্বরদীতে এবার রোপা আমন ধানের আবাদ হয়েছে মোট ৩৬১৫ হেক্টর জমিতে । ইতিমধ্যে ঈশ্বরদীর বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা যায়, শীতকালীন ফসল সরিষার চাষও শুরু হয়েছে। পাশাপাশি ঈশ্বরদীর বিভিন্ন এলাকায় খেসারি, কালাই, তিল, মটর, মসুর, আলুসহ নানা প্রকার ফসল চাষের প্রস্তুতি নিয়েছেন কৃষকরা। চলতি আমন মৌসুমে বর্ষার পানি পর্যাপ্ত না পাওয়ায় বিপাকে পড়েছিলেন আমন চাষিরা। আবার দেখা দিয়েছিলো সার সংকট এবং হঠাৎ তেলের দাম বৃদ্ধি। সব মিলিয়ে ধান চাষে খরচ বেশি হয়েছিলো কৃষকদের। আবার ধান কাটা-মাড়াইয়ে বিঘা প্রতি খরচ হয়েছে প্রায় ২ থেকে ৩ হাজার টাকার মতো। চাষিরা জানান, যদি ধানের দাম সরকার বাড়ায় তাহলেচাষিরা লাভের মুখ দেখবেন অন্যথায় লোকসান গুনতে হবে। সোনালি রঙের ধান কেটে আঁটি বেঁধে খোলা মাঠে ফেলে রাখছেন কৃষকরা। এতে গোটা মাঠ সোনালী রংয়ের চাদরে আবৃত হয়ে আছে। ধান কাটা এবং মাঠ থেকে ধান তোলার সাথে সরিষা চাষের জন্য জমিতে ফেলা হচ্ছে সরিষা বীজ। সেলিম পুরের কৃষক সলেমান জানান এবার আমি পাঁচ বিঘা জমিতে আমন চাষ করেছি। আশানুরূপ ফলন হয়েছে। ধানের মূল্য ভালো থাকলে লাভ করতে পারব। এবং বিঘা প্রতি ১৬ থেকে ১৭ মন ধান
পাবো। মুলাডুলির কৃষক নবাব আলী বলেন, এবার ধানের ফলন ভালো হয়েছে। ইদুরের উপদ্রবটা এবার বেশী থাকার কারণে সামান্য ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছি, ফলন ভালো হওয়ায় তা পুষিয়ে গেছে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরো সংবাদ

সাম্প্রতিক সংবাদ

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সম্পূর্ণ বেআইনি এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায় সিসা হোস্ট