1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : Ashraful Abedin : Ashraful Abedin
  3. [email protected] : masud :
রবিবার, ২৯ জানুয়ারী ২০২৩, ০৮:২১ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
ঈশ্বরদীতে পৌর কাউন্সিলর কামাল হোসেনের মুক্তির দাবিতে সভা অনুষ্ঠিত ঈশ্বরদীর বাঘইল স্কুল এন্ড কলেজে পুণঃমিলনী সভা অনুষ্ঠিত বাঘইল স্কুল এন্ড কলেজের ৭৫ তম বছর পূর্তি অনুষ্ঠান বাস্তবায়ন কমিটির সভা অনুষ্ঠিত ঈশ্বরদীতে নিষিদ্ধ ট্রাপেন্ডাডল ট্যাবলেটসহ এক নেতা গ্রেফতার প্রবাস জীবন শেষে হতাশাগ্রস্ত রায়হান মাছ ও ফলনশীল গাছের চাষ করে কোটিপতি ঈশ্বরদী থেকে সাত ভাই একসাথে পবিত্র ওমরাহ হজ্ব পালনের উদ্দেশ্যে সৌদি যাত্রা ঈশ্বরদী আইকে রোডে অত্যাধুনিক “গ্রীণসীটি সি ফুড স্টেশন”এর উদ্বোধন ঈশ্বরদীতে নিঁখোজের ছয়দিন পর বিএনপি নেতার পুকুর থেকে সুমনের লাশ উদ্ধার মেজর ইমরুল আলম (অব:) এর পক্ষ থেকে শীতার্তদের মাঝে কম্বল বিতরণ পাকশীতে নিরাপত্তাবাহিনী থেকে ৩৬ বছর পর আবু হেনার বিদায়

অন্তঃসত্বা গৃহবধুকে মাথা ন্যাড়া করে দিলো তার পাষন্ড স্বামী………

  • প্রকাশিত : শনিবার, ৬ ফেব্রুয়ারী, ২০২১
  • ৪৪৩ বার দেখা হয়েছে

স্টাফ রিপোর্টার।। ময়মনসিংহের তারাকান্দায় কাকলী আক্তার (২০) নামে এক অন্তঃসত্বা গৃহবধুর মাথা নাড়া করে দিয়েছে তার স্বামী শাহ পরান (২৫) যৌতুক না পাওয়র কারনে।

ভূক্তভুগী নারী উপজেলার কামারগাঁও ইউনিয়নের হরিয়াতলা গ্রামের মৃত আবুল বাশারের মেয়ে। আর তার স্বামী শাহ পরান একই উপজেলার প্রজাবতখিলা গ্রামের হক মিয়ার ছেলে।

অভিযোগের ভিত্তিতে তারাকান্দা থানার ওসি আবুল খায়ের বলেন, প্রায় ১০ মাস আগে পারিবারিকভাবে বিয়ে হয় তাদের। বিয়ের তিন মাস পর গর্ভবতী হন কাকলী। এরপর থেকে যৌতুকের জন্য তার ওপর নির্যাতন শুরু হয়। এ অবস্থায় গত ২৯ জানুয়ারি সন্তান নষ্ট করার জন্য তাকে ডাক্তারের কাছে নিয়ে যান শাহ পরান। কাকলী সন্তান নষ্ট করতে রাজি না হওয়ায় বাড়িতে তার ওপর শারীরিক নির্যাতন শুরু হয়। এক পর্যায়ে কাকলীর মাথার চুল কেটে দেন শাহ পরান।

এ ব্যাপারে বৃহস্পতিবার (৪ ফেব্রুয়ারি) তারাকান্দা থানায় একটি মামলা দায়ের করেন সেই অন্তঃসত্বা নারী ভুক্তভুগী কাকলী আক্তার।

ওসি আরো জানান, গৃহবধূর মাথা ন্যাড়া করার পরে স্বামী তাকে তিনদিন আটকে রাখে। তিনদিন পর সুযোগ পেয়ে কাকলি সেখান থেকে পালিয়ে তার বাবার বাড়ি চলে আসে। এরপর তার পরিবারের লোকজনকে সাথে নিয়ে বৃহস্পতিবার থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। তবে এখন দুই পক্ষই মীমাংসা করার চেষ্টা চলছে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ

সাম্প্রতিক সংবাদ

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সম্পূর্ণ বেআইনি এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায় সিসা হোস্ট