1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : Ashraful Abedin : Ashraful Abedin
  3. [email protected] : masud :
রবিবার, ২৯ জানুয়ারী ২০২৩, ০৯:০৭ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
ঈশ্বরদীতে পৌর কাউন্সিলর কামাল হোসেনের মুক্তির দাবিতে সভা অনুষ্ঠিত ঈশ্বরদীর বাঘইল স্কুল এন্ড কলেজে পুণঃমিলনী সভা অনুষ্ঠিত বাঘইল স্কুল এন্ড কলেজের ৭৫ তম বছর পূর্তি অনুষ্ঠান বাস্তবায়ন কমিটির সভা অনুষ্ঠিত ঈশ্বরদীতে নিষিদ্ধ ট্রাপেন্ডাডল ট্যাবলেটসহ এক নেতা গ্রেফতার প্রবাস জীবন শেষে হতাশাগ্রস্ত রায়হান মাছ ও ফলনশীল গাছের চাষ করে কোটিপতি ঈশ্বরদী থেকে সাত ভাই একসাথে পবিত্র ওমরাহ হজ্ব পালনের উদ্দেশ্যে সৌদি যাত্রা ঈশ্বরদী আইকে রোডে অত্যাধুনিক “গ্রীণসীটি সি ফুড স্টেশন”এর উদ্বোধন ঈশ্বরদীতে নিঁখোজের ছয়দিন পর বিএনপি নেতার পুকুর থেকে সুমনের লাশ উদ্ধার মেজর ইমরুল আলম (অব:) এর পক্ষ থেকে শীতার্তদের মাঝে কম্বল বিতরণ পাকশীতে নিরাপত্তাবাহিনী থেকে ৩৬ বছর পর আবু হেনার বিদায়

ঈশ্বরদীতে পল্লী চিকিৎসক আব্দুর রহমানের বিরুদ্ধে প্রতারনার অভিযোগ

  • প্রকাশিত : রবিবার, ১ আগস্ট, ২০২১
  • ৫১০ বার দেখা হয়েছে

স্টাফ রিপোর্টার ॥ পল্লী চিকিৎসক আব্দুর রহমানের ভুল চিকিৎসায় অনেক রোগীর ক্ষতিগ্রস্থ হওয়া এবং ড্রাগ লাইসেন্স ছাড়াই বড় আকারের মেডিসিন ব্যবসা করাসহ প্যাড ও সাইনবোর্ডে ডা: মো: আব্দুর রহমান লিখে প্রতারণার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

দীর্ঘ প্রায় সাত বছর ধরে আব্দুর রহমান ঈশ্বরদীর সাঁড়া পাঁচ নম্বর ঘাট এলাকায় ‘হলি মেডিক্যাল হল’ সাইন বোর্ড ঝুলিয়ে নিম্ন মানের কোম্পানীর ঔষধ সহ বড় আকারের মেডিসিন ব্যবসা এবং সাইন বোর্ড ও প্যাডে ডা. মোঃ আব্দুর রহমান লিখে এলাকার গরীব জনগণ ও রাষ্ট্রের সাথে প্রতারনা করে যাচ্ছেন।

এলাকার ভুক্তভোগী জনগণ, একজন পল্লী চিকিৎসক ও প্রকৃত চিকিৎসকদের দেওয়া অভিযোগ সূত্রে এসব তথ্য জানাগেছে।

সূত্রমতে, ঈশ্বরদীর সাঁড়া পাঁচ নম্বর ঘাট এলাকায় ‘হলি মেডিক্যাল হলের মালিক ও পল্লী চিকিৎসক মোঃ আব্দুর রহমান দীর্ঘ প্রায় সাত বছর ধরে নদীর ঘাটস্থ নদী ভঙ্গন এলাকায় নানা ভাবে গরীব ও অশিক্ষিত জনগোষ্ঠিকে নানাভাবে ঠকিয়ে আসছেন। মাঝে মধ্যেই ভুল চিকিৎসা ও নিম্মা
নিম্ন মানের ওষুধ প্রয়োগে রোগীদের ক্ষতি হওয়ার খবর শোনা যায়। গত বুধবার রাতেও ভুল চিকিৎসায় এলাকার এক মহিলা রোগির গর্ভের ছয় মাসের বাচ্চার মৃত্যু ও প্রসব হওয়ার ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকাবাসী ‘হলি মেডিক্যাল হল’ এ তালা ঝুলিয়ে দেয়।

আব্দুর রহমান প্রভাবশালী ও অর্থশালী হওয়ায় বিশেষ কৌশলে ঐ রাতেই সে এলাকাবাসীদের কয়েকজনকে ম্যানেজ করে দোকানের তালা খুলে নেয়। বিষয়টি এলাকার চৌকিদারসহ অনেকেরই জানা আছে। ড্রাগ লাইসেন্স ছাড়া মেডিসিন ব্যবসা করছেন বলে স্বীকার করে অভিযুক্ত পল্লী চিকিৎসক আব্দুর রহমান সাংবাদিকদের বলেন,অন্য অনেক পল্লী চিকিৎসকই সাইন বোর্ড ও প্যাডে ডাক্তার শব্দ ব্যবহার করছেন ,তাই আমিও ব্যবহার করছি।

পল্লী চিকিৎসক আব্দুর রহমানের এহেন প্রতারণা মূলক কাজের জন্য ভুক্তভুগী এলাকাবাসী ও প্রকৃত ডাক্তাররা ‘হলি মেডিক্যাল হল’ নামের মেডিসিন ব্যবসা বন্ধ ও দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তি দাবি করেছেন।

এসব অভিযোগের বিষয়ে ঈশ্বরদী উপজেলা শাস্থ্য কর্মকর্তা ডা.আসমা খানম,পাবনার সিভিল সার্জন মনেশ^র চৌধুরী ও ড্রাগ সুপার সুকর্ণ চৌধুরী বলেন,ড্রাগ লাইসেন্স ছাড়া মেডিসন ব্যবসা করা এবং সাইন বোর্ড ও প্যাডে ডাক্তার শব্দটি ব্যবহার করা রাষ্ট্র ও জনগনের সাথে এক ধরনের প্রতারনা করা। কোন ভাবেই এসব করা বৈধ না। তবে স্থানীয় ইউএনও ও ড্রাগ সুপার এসব বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা নিবেন । প্রয়োজনে আমি ইউএনওকে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য বলব বলেও সিভিল সার্জন মনেশ্বর চৌধুরী সাংবাদিকদের জানান। একইভাবে ড্রাগ সুপার সুকর্ণ চৌধুরী আব্দুর রহমানের বিরুদ্ধে অভিযোগের বিষয়টিকে আইনগত দন্ডনীয় অপরাধ উল্লেখ করে রবিবার দুপুরে ব্যবস্থা নিচ্ছি বলে সাংবাদিকদের জানান তিনি।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ

সাম্প্রতিক সংবাদ

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সম্পূর্ণ বেআইনি এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায় সিসা হোস্ট